আগস্ট ১৯, ২০২২ ১:৫৪ অপরাহ্ণ

‘ফাইজারের করোনা ট্যাবলেট প্রায় ৯০ শতাংশ কার্যকর’

ট্যাবলেট, ঝুঁকি, রোগী, হাসপাতাল, মৃত্যু, রয়টার্স, ওষুধ
ফাইজারের করোনা ট্যাবলেট। ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা (১৫ ডিসেম্বর): ফাইজার দাবি করছে তাদের অ্যান্টিভাইরাল কোভিড-১৯’র ট্যাবলেট উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যু প্রতিরোধে প্রায় ৯০ শতাংশ কার্যকর। সাম্প্রতিক ল্যাব ডেটায় দেখা গেছে ওষুধটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়া ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধেও কার্যকর।

আজ বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মার্কিন এই ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান গত মাসে জানিয়েছিল, প্রায় ১ হাজার ২০০ জনের অন্তর্বর্তী ফলাফলের ভিত্তিতে দেখা গেছে প্ল্যাসিবোর (টিকা জাতীয় ওষুধ) তুলনায় মুখে খাওয়া ওষুধ হাসপাতালে ভর্তি হওয়া বা মৃত্যু প্রতিরোধে ৮৯ শতাংশ কার্যকর।

গতকাল মঙ্গলবার প্রকাশিত ট্রায়ালের চূড়ান্ত বিশ্লেষণে অতিরিক্ত ১ হাজার লোককে যোগ করা হয়। ট্রায়ালে প্ল্যাসিবো ওষুধ গ্রহণকারীদের মধ্যে ১২ জনের মৃত্যু হলেও ফাইজারের ট্যাবলেট খাওয়া ব্যক্তিদের কেউ মারা যাননি।

করোনার লক্ষণ দেখা দিলে পুরানো অ্যান্টিভাইরাল রিটোনাভিরের সঙ্গে ফাইজারের ট্যাবলেট প্রতি ১২ ঘণ্টা পরপর ৫ দিন খেতে হবে। অনুমোদন পেলে এই ওষুধ ‘প্যাক্সলোভিড’ নামে বিক্রি করা হবে।

ফাইজারের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মিকেল ডলস্টেন এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘এটি একটি চমকপ্রদ ফলাফল।’ ‘আমরা বহু মানুষের জীবন বাঁচানো ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোধের কথা বলছি। আপনি যদি সংক্রমণের পর দ্রুত এই ট্যাবলেট খান তাহলে আমরা নাটকীয়ভাবে সংক্রমণ কমিয়ে ফেলতে পারবো।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Email
Print

সম্পর্কিত

নারী, ক্রিকেটার, রাজধানী, ওমিক্রন, মেডিকেল,

হাসপাতালে ‘ওমিক্রন-ডেল্টায়’ আক্রান্ত ৩ নারী ক্রিকেটার

ঢাকা (১৪ ডিসেম্বর): বাড়তি সতর্কতা হিসেবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত তিন নারী ক্রিকেটারকে রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অবশ্য...